জাতীয়

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তৌহিদ হত্যা: আশিক গ্রেপ্তার

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র তৌহিদুল হত্যার ঘটনায় আশিকুজ্জামান (২৭) নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গ্রেপ্তার আশিকুজ্জামান ময়মনসিংহ নগরীর গোহাইলকান্দি (জামতলামোড়) এলাকার মৃত সোহেল মিয়ার ছেলে।

সোমবার (৪ এপ্রিল) বিকেলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ তথ্য জানান জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আহমার উজ্জামান।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, গত রোববার (৩ মে) বিকালে আকুয়া বোর্ড এলাকা থেকে আশিকুজ্জামানকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে হত্যাকাণ্ডের সময় পরিহিত রক্তমাখা প্যান্ট এবং গেঞ্জি গাজীপুরের শ্রীপুর এমসি বাজার থেকে উদ্ধার করা হয়। সোমবার (৪ মে) ভোররাতে তার নিজ এলাকার ডোবা থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত রড উদ্ধার করা হয়।

জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি শাহ কামাল বলেন, ‘মোবাইল ছিনতাই করতে গিয়ে তৌহিদুল আশিকুজ্জামানকে দেখে ফেলে। মোবাইলটি ছিনিয়ে নেওয়ার সময় দুজনের হাতাহাতি হয়। সে সময় ঘরে থাকা লোহার রড দিয়ে তৌহিদের বুকে আঘাত করে পালিয়ে যায় আশিকুজ্জামান।

পরে রক্তাক্ত অবস্থায় তৌহিদকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে। 

উল্লেখ, গত শুক্রবার ভোরে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী তৌহিদ খুন হন। নিহত শিক্ষার্থী তৌহিদুল ইসলাম খান নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার রামেশ্বর গ্রামের সাইদুল ইসলাম খানের ছেলে। তৌহিদ জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী ছিলেন।

Show More

Related Articles

Back to top button