আন্তর্জাতিক

ডব্লিউএইচও’র হুঁশিয়ারি, আরও দুই ধাপে আসছে করোনার হানা

বিশ্বে নভেল করোনাভাইরাস মহামারির প্রথম ধাপ চলছে এটির প্রকোপ শেষ হলেও দ্বিতীয় বা তৃতীয় ধাপে করোনা হানা দিতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। গতকাল শুক্রবার এই সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, ভ্যাকসিন তৈরি না হওয়া অবধি করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় বা তৃতীয় দফার আক্রমণের জন্য তৈরি থাকতে হবে বিশ্বের দেশগুলিকে।

ডব্লিউএইচও এর ইউরোপীয় প্রধান ডাঃ হান্স ক্লুগ জানান, লকডাউন চলছে বহু দেশে। কিন্তু তা সত্ত্বেও করোনার প্রকোপ কমানো যায়নি। আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে।

কূলুগ বলেন, এর আগেও তিনি করোনার ভয়াবহতা নিয়ে সতর্ক করেছিলেন। জানিয়েছিলেন, এত তাড়াতাড়ি কোভিড ১৯-এর প্রভাব কমবে না। যতদিন না এর কোনও ভ্যাকসিন তৈরি হচ্ছে, ততদিন পর্যন্ত সতর্ক থাকতে হবে বলে পরামর্শ তার।  তারদাবি দাবি, যেকোনো দিন নতুনভাবে আক্রমণ চালাতে পারে করোনাভাইরাস। এটি দ্বিতীয় ও তৃতীয় ধাপে ছড়াতে পারে।

কূলুগের ধারণা ভ্যাকসিন না বেরোনো পর্যন্ত সতর্ক থাকার কথা বলা হলেও, এই ভাইরাসের ভ্যাকসিন বেরোতে অনেকটাই সময় লাগবে।  যার ফলে আরও প্রাণহানির আশঙ্কা থাকছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের  এখন উচিত ভবিষ্যতের জন্য তৈরি থাকা। কারণ নতুন করে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ভয় এখনও পূর্ণ মাত্রায় রয়েছে। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ইউরোপীয় প্রধান জানাচ্ছেন, যদি প্রথম দফা কেটে যায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণের, তবু আশঙ্কা থেকে যায়। কারণ দ্বিতীয় দফায়ও ছড়াতে পারে এই ভাইরাস। আর তার ফল হবে  অত্যন্ত মারাত্মক।

এখনও প্রথম দফার চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌঁছনো যায়নি বলে ধারণা  করছেন তিনি। এরই মধ্যে বিভিন্ন দেশ নিষেধাজ্ঞা শিথিল করেছে। তবে শিথিলতা উঠলেও, সতর্কতা থেকেই যাচ্ছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে। জানানো হয়েছে বাইরে বেরোলে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক।

এই বিষয়টাকেই ভয় পাচ্ছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। কূলুগ বলেন, স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় এখনই ফেরা উচিত নয় দেশগুলির। কারণ এখনও করোনার রক্তচক্ষু কাটেনি। এখনও বিশ্ব ৬৩ শতাংশ মৃত্যু দেখেছে করোনায়। এত তাড়াতাড়ি করোনা বিদায় নেবে না বলেই মন্তব্য তার।

Show More

Related Articles

Back to top button